“মনের মতো বউ পাইলাম না”

moner moto bou pailam na

“মনের মতো বউ পাইলাম না”

উদ্বাস্তু অনিকেত

রোমান্টিক এ্যাকশনধর্মী পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা ছায়াছবি
শ্রেষ্ঠাংশে :
নায়ক : স্বয়ং আমি
নায়িকা : তিফার আম্মু
সাইড নায়িকা : রিহানের আম্মু
প্রধান ভিলেন : তিনতলার মুটকি ভাবী
বিশেষ চরিত্র : তিফার আব্বু
শিশু শিল্পী : রিহান ও তাঁর বান্ধবী তিফা
.
রিহানের আম্মু সাইড নায়িকা হিসাবে অভিনয় করলেও পর্দায় তাঁর সরব উপস্থিতি থাকবে। সিনামার শুরুতেই নায়কের সাথে বেশ ক’টি অন্তরঙ্গ রোমান্টিক দৃশ্যে দেখা যাবে তাকে। তবে শেষের দিকে তিনতলার মুটকি ভাবীর কানকথা শুনে নায়কের সাথে পূর্ণমাত্রায় এ্যাকশনে লিপ্ত হবে!
.
বিজ্ঞাপন বিরতি : কেয়া কসমেটিকস, লালবাগের হাঁসমার্কা গন্ধরাজ নারিকেল তেল, বিদ্যুৎ কালো নিমের মাজন সহ অনেকগুলো বিজ্ঞাপন হবে।
.
বিরতির পর একটা নাক ফাটানো মারামারির দৃশ্য থাকবে।যেখানে সাইড নায়িকা ঘুসি দিয়ে নায়কের চেহারার ক্ষতিসাধন করবে। পরে নায়িকা এসে শাড়ির আঁচল ছিড়ে নায়কের রক্তক্ষরণ বন্ধ করবে। হাসপাতালের সাদা বেডে অজ্ঞান নায়কের হাত ধরে নায়িকা সরারাত নির্ঘুম বসে থাকবে।
.
শিশুশিল্পী রিহান ও তিফা হাত ধরাধরি করে একটা শিশুতোষ গান গাইবে,
“…… এই বুকে বইছে যমুনা
নিয়ে অথৈ প্রেমের জল
তারই তীরে গড়বো আমি
আমার প্রেমের তাজমহল…. “
গানের সুরে সুরে দু’হাত প্রসারিত করে শিশুশিল্পীগণ দিগন্তের দিকে চলে যাবে। পরে নায়ক নায়িকা মিলে তাদেরকে কান ধরে বাসায় ফিরিয়ে আনবো। অপ্রাপ্ত বয়ষ্ক হওয়ায় এর বেশি কিছু পর্দায় দেখানো সম্ভব না।
.
একটি বিশেষ চরিত্রে তিফার আব্বুকে দেখা যাবে। তিনি বাপ্পারাজের মতো নিজের প্রেমকে বিসর্জন দিবেন। মর্মাহত হৃদয়ে নায়িকাকে নায়কের হাতে সঁপে দিয়ে বাংলাদেশ বিমানে করে মিডলইস্টে চলে যাবেন!
.
ব্যাকগ্রাউন্ডে করুন মিউজিক বাজতে শুনা যাবে।
.
অতঃপর নায়ক নায়িকার মহামিলন।
খুশিতে আত্মহারা নায়ক নায়িকা মোটরসাইকেল চালিয়ে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে চলে যাবে। সাগরের নীল জলরাশিতে তারা দুষ্টু হাঁসের মতো জলখেলা করবে। সাগরের নোনা জলে ভিজতে ভিজতে একটা ডুয়েট গানে পার্টিসিপেট করবে…..
“….অনন্ত প্রেম তুমি দাও আমাকে
প্রেম পিপাসায় ভরা এ মন
তোমার ভালবাসা শুধু
ভালবাসাই প্রয়োজন….। “
.
গান শেষ হওয়ার সাথে সাথে আবার বিজ্ঞাপন বিরতি। আরএফএল টিউবওয়েল, আরসি কোলা এবং মেরীল বেবী লোশনের অনেকগুলো বিজ্ঞাপন হবে।
.
বিজ্ঞাপনের পরে দেখা যাবে নাচাগানা করে ক্লান্ত নায়ক নায়িকার কোলে মাথা রেখে ঘুমাচ্ছে। নায়িকার দীঘল কালো কেশ পূবালী বাতাসে উড়ে একটা স্বপ্নীল আবহের সৃষ্টি হয়েছে।

কিন্তু……
হঠাৎ সাইড নায়িকার ভয়ংকর গর্জনে নায়কের ঘুম ভেঙে যাবে। নায়ক সম্বিৎ হয়ে বাস্তবতায় অবতরণ করবে। চোখ খুলে দেখবে তাঁর বাস্তবের বউ কোমরে হাত বেঁধে নাক ফুলিয়ে দাঁড়িয়ে আছে। তাঁর চোখেমুখে হিংস্রতা হাতে বাজারের ব্যাগ। বাসায় নুন মরিচ নাই অজুহাতে একটা কঠিন ধমক দিবে। নায়কের স্বপ্নীল অভিব্যক্তি মুহূর্তেই তলিয়ে যাবে

এদিকে নায়কের আবার ঘুমালে হুঁশ থাকেনা। প্রতিদিনের মতো আজও সে লুঙ্গি খুজে পাচ্ছে না। অনেক কষ্টে লুঙ্গি জোগাড় করে বাথরুমে প্রবেশ করবে। কাঁচা ঘুম চোখে লেগে আছে তবুও চোখ মুছতে মুছতে নুন মরিচ আনতে বাজারের দিকে রওয়ানা হবে আর বিড়বিড় করে বলবে…. এই জনমে
“মনের মতো বউ পাইলাম না”

Suhanur Rahman
Hi there, I'm Suhanur Rahman (Suhan) . I'm a Regular Content writer in kanggal.com. I'm Experts on advanced computer skills, there is the concept of Web Development (HTML, CSS, PHP-BASIC, JS-BASIC), Android App Development (Java Programming), and Microsoft Office. And I have completed two Certified Courses on Web Development and Android App Development from Bangladesh ICT Division. Best Regards -Suhan